চট্টগ্রামে সাংবাদিকদের সংগঠন সিআরএফ’র আত্মপ্রকাশ

চট্টগ্রামে কর্মরত বিভিন্ন সংবাদপত্র, বেসরকারি টেলিভিশন ও অনলাইন সংবাদমাধ্যমের কর্মরত সাংবাদিকদের নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করেছে ‘চট্টগ্রাম রিপোর্টার্স ফোরাম’ (সিআরএফ)।

২১ জুলাই শনিবার রাতে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব মিলনায়তনে বিপুল সংখ্যক সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে চট্টগ্রাম রিপোর্টার্স ফোরামের গঠনতন্ত্র অনুমোদন দেওয়া হয় এবং নতুন কমিটি গঠন করা হয়। এর আগে সন্ধ্যা থেকে সংগঠনটির সার্বিক বিষয়ে মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন সংগঠনটির সদস্যরা।

সভায় উপস্থিতদের সর্ব সম্মতিক্রমে কাজী আবুল মনসুরকে সভাপতি ও সাংবাদিক আলীউর রহমানকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়েছে।

কমিটিতে স্থান পাওয়া অন্যরা হলেন সিনিয়র সহ-সভাপতি নিরুপম দাশ গুপ্ত (দৈনিক সংবাদ), সহ-সভাপতি আলমগীর অপু (সিপ্লাস টিভি), যুগ্ম সম্পাদক গোলাম মাওলা মুরাদ (আনন্দ টিভি), সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল্লাহ আল ফারুক (দৈনিক পূর্বদেশ), অর্থ সম্পাদক আইয়ুব আলী (দৈনিক ইনকিলাব), ক্রীড়া ও সাংস্কৃতি সম্পাদক লোকমান চৌধুরী (বাংলা টিভি), সমাজ কল্যাণ সম্পাদক লতিফা আনসারী রুনা (দীপ্ত টিভি), আন্তর্জাতিক ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক সরোয়ার আমিন বাবু (আরটিভি), প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আজিজুল কাদির (দৈনিক সুপ্রভাত বাংলাদেশ) এবং চারজন কার্যনির্বাহী সদস্য হলেন জামশেদ রেহমান চৌধুরী (যমুনা টেলিভিশন, চট্টগ্রাম ব্যুরো), শামসুল হুদা মিন্টু (আবাস), আবুল হাসনাত (এটিএন বাংলা), দেব দুলাল ভৌমিক (বাসস)।

অনুষ্ঠানের অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দৈনিক ইত্তেফাকের চট্টগ্রাম ব্যুরোপ্রধান সালাউদ্দিন রেজা, সিনিয়র সাংবাদিক জুবায়ের সিদ্দিকী, যমুনা টেলিভিশনের ব্যুরোপ্রধান জামশেদুর রহমান চৌধুরী, জনকণ্ঠের সিনিয়র সাংবাদিক হাসান নাসির, সাংবাদিক শামসুল হুদা মিন্টু, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাবেক সমাজসেবা সম্পাদক আইয়ুব আলী, বাংলা নিউজের সিনিয়র রির্পোটার আল রহমান, আর টিভি চট্টগ্রামের ব্যুরোপ্রধান সরোয়ার আমিন বাবু প্রমুখ।

সিআরএফ’র পূর্ণাঙ্গ কমিটির পাশাপাশি রিপোর্টারদের আবাসন সংকট সমাধানে বাসস’র দেবদুলাল ভৌমিককে আহ্ববায়ক করে ‘সিআরএফ হাউজিং কো-অপারেটিভ সোসাইটি’ নামে একটি আহ্ববায়ক কমিটিও গঠিত হয়। এ কমিটি ১৫ দিনের মধ্যে তিন সদস্যবিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ সাব-কমিটি গঠন করবে। এ সংগঠনটি রিপোর্টারদের আবাসন সংকট সমাধানে কাজ করবে বলে জানান ফোরামের নেতারা।

সংগঠনের নবনির্বাচিত সভাপতি ও চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহসভাপতি কাজী আবুল মনসুর বলেন, ‘মাঝে-মধ্যে পিআইবি বা কিছু এনজিও রিপোর্টারদের জন্য প্রেসক্লাব বা সাংবাদিক ইউনিয়নের মাধ্যমে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করে। তবে তা গতানুগতিক। সেখানে সব রিপোর্টার প্রশিক্ষণের সুযোগ পায় না। এসব প্রশিক্ষণে গিয়ে রিপোর্টাররা তেমন কিছু শিখতে পারে না। তাই দেশে ও দেশের বাইরে স্কলারশিপ নিয়ে গিয়ে যাতে আন্তর্জাতিকভাবে প্রশিক্ষণ নিতে পারে সে ব্যবস্থা করা হবে। রাজনৈতিক প্লাটফর্মের বাইরে থেকে নিজেদের আবাসন ও আত্মউন্নয়নে কাজ করা হবে।’

৩ ডিসেম্বর ১১ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি গঠনের প্রায় ৮ মাসের মাথায় পূর্ণাঙ্গ কার্যকরী কমিটি গঠন হলো।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*