পলাশবাড়ীতে জমি-জমা সংক্রান্ত মামলার রায় কেন্দ্র করে মারপিট: মহিলাসহ আহত ৫ থানায় অভিযোগ দাখিল ।

আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার পলাশবাড়ীর পল্লীতে বিরোধপূর্ণ জমিজমা সংক্রান্ত আদালতে বিচারাধীন মামলার রায় কেন্দ্র করে ক্ষুব্ধ বিবাদী পক্ষের হামলায় জমির ফসল ক্ষতিসাধনসহ বেধরক মারপিটে গুরুতর আহত হয়েছেন মহিলাসহ ৫ জন। মামলা দায়েরের জন্য এ ব্যাপারে থানায় অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে।
সরেজমিন এলাকাবাসি ও মামলার অভিযোগে জানা যায় উপজেলার হরিনাথপুর ইউনিয়নের কিশামত কেওয়াবাড়ী গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের ছেলে
আনিছুর রহমান (৪০) গংদের সাথে মৃত কফিল উদ্দিনের ছেলে আব্দুল জলিলের সাথে পারিবারিক জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধসহ মামলা-মোকর্দ্দমা চলে আসছিল।
একপর্যায় বিজ্ঞ আদালতে বিচারাধীন মামলার রায়ে জলিল গং’রা জয়লাভ করেন। আনিছুর গংরা হেরে যায়। এরই সূত্রধরে গত সোমবার সকালে আব্দুল জলিল ও তার ছোট ভাই নুরুল ইসলাম তাদের ২ মেয়েসহ বিরোধপূর্ণ ওই জমিতে রোপনকৃত পটল উঠাতে গেলে আনিছুর পরিবার তাদের বাধা প্রদান করে। এসময় তাদের মধ্যে প্রথমে বাকবিতন্ডার সৃষ্টি হয়।কিছু বুঝে উঠার আগেই ক্ষুব্ধ আনিছুর পরিবারের লোকজন জলিল পরিবারের উপর হামলা চালায়। এসময় এলোপাথারি মারপিটে নূরুল ইসলাম ও তার দুই ভাতিজিসহ একই পরিবারের ৫ জন গুরুতর আহত হয়।
এসময় আনিছুর গং’রা ৫০ হাজার টাকা মূল্যের একটি স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেয়াসহ বিরোধপূর্ণ ২৯ শতাংশ জমিতে রোপিত পোটল ক্ষেতসহ বাঁশের জাঙলা তছনছ করে আনুমানিক সোয়া লাখ টাকার ক্ষতিসাধন করেছেন বলে অভিযোগে জানা যায়।
স্থানীয়রা ঘটনাস্থল থেকে আহতদের তাৎক্ষনিক উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য গাইবান্ধা সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করে। এব্যাপারে কাষতিগ্রস্থ আব্দুল জলিল বাদী হয়ে মামলা দায়েরের জন্য পলাশবাড়ী থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করেছেন। এদিকে পলাশবাড়ী থানা অফিসার ইনচার্জ হিফজুর আলম মুন্সি বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান উপজেলার হরিণাবাড়ী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র (ফাঁড়ি) এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে। সরেজমিন তদন্তের জন্য এজাহারটি ওই তদন্ত কেন্দ্রে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে ওই পুলিশ ফাঁড়ির দায়িতপ্রাপ্ত ইনচার্জ এসআই কামাল-এর সাথে তার মুঠোফোনে এব্যাপারে কথা বললে তিনি জানান বিষয়টির এখনো তদন্ত অব্যাহত রয়েছে। প্রাথমিক তদন্ত শেষ হলেই এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ঘটনার সাথে জড়িত কাউকে পুলিশ গ্রেফতার করেননি বলে জানা গেছে। ছবি সংযুক্ত

আরিফ উদ্দিন
গাইবান্ধা প্রতিনিধি
তাং- ১০-০৪-২০১৯
মোবাঃ ০১৭৩৭-০০৬৪৩০

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*