ভারতে লোকসভার আগে নির্বাচন বান্ধব বাজেট

ভারতে লোকসভার আগে নির্বাচন বান্ধব বাজেট

লোকসভা নির্বাচনের আগে জনদরদী ভাবমূর্তি তুলে ধরার এটাই শেষ সুযোগ ছিল মোদি সরকারের কাছে। সেই সুযোগের পুরোপুরি ফায়দা তুললো সরকার। অন্তর্বর্তী বাজেটে আয়করের ঊর্ধ্বসীমা দ্বিগুণ করার ঘোষণা করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূষ গোয়েল।
অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির অনুপস্থিতিতে কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী গোয়েল আজ যে বাজেট পেশ করলেন, তাতে ৫ লাখ রুপি পর্যন্ত আয়ের ওপর কোনও কর দিতে হবে না। অর্থাৎ সম্পূর্ণ করমুক্ত। এর বাইরেও মধ্যবিত্তের আয় এবং সঞ্চয়ে স্বস্তি দেয়ার মতো একাধিক প্রস্তাব দিয়েছেন পীযূষ গোয়েল।
আগে আয়কর ছাড়ের ঊর্ধ্বসীমা ছিল ২ লক্ষ ৫০ হাজার রুপি। এবারের অন্তর্বর্তী বাজেটে সেই ঊর্ধ্বসীমা যে বাড়তে পারে আগে থেকেই তার ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন অর্থনীতিবিদ এবং রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।
কিন্তু এতো বড় ঘোষণা যে হতে পারে, তা কেউই আন্দাজ করতে পারেননি। এক লাফে দ্বিগুণ বাড়িয়ে আয়কর ছাড়ের ঊর্ধ্বসীমা ৫ লাখ রুপি করার কথা ঘোষণা দেয়া হলো অন্তর্বর্তী বাজেটে।
ভারতীয় প্রবীণ অর্থনীতিবিদরা বলছেন, এর আগে কোনও পূর্ণাঙ্গ বাজেটেও এতো বড় ঘোষণা দেয়া হয়েছে কিনা তা তারা মনে করতে পারছেন না।
করযুক্ত আয়ের ওপর আগে ছাড় দেয়া হতো ৪০ হাজার রুপি পর্যন্ত। করের পরিভাষায় যাকে বলা হয় ‘স্ট্যান্ডার্ড ডিডাকশন’। সেই ঊর্ধ্বসীমা বাড়িয়ে করা হয়েছে ৫০ হাজার রুপি।
এর বাইরে দেড় লাখ রুপি পর্যন্ত বিনিয়োগের ওপর কর ছাড় আগেই ছিল। ফলে সব মিলিয়ে কার্যত ৭ লাখ রুপি পর্যন্ত (যদি বিনিয়োগ দেড় লাখ রুপি ধরা হয়) কোনও কর দিতে হবে না।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*