ঢাকা টু আমেরিকা -জয়া চৌধুরী

বিনোদন প্রতিবেদক: বর্তমান সময়ে আলোচনায় আসছে মিউজিক ভিডিও গুলো। আজ বাজনা মাল্টিমিডিয়ার উইটিউব চ্যানেলে প্রকাশ করা হয়েছে ‘সত্য ঘটনা অবলম্বনে ঢাকা টু আমেরিকা’ শিরোনামে একটি মিউজিক্যাল ফিল্ম। এতে অবিনয় করেছেন নায়িকা জয়া চৌধুরী। শাহ ফিরোজের পরিচালনায় গানের কথা লিছেন ফিরোজ প্লাবন। গানে কন্ঠ দিয়েছেন বিপাশা। শিরোনামে লিখা আছে ‘সত্য ঘটনা অবলম্বনে ঢাকা টু আমেরিকা’। গানের দৃশ্যে জয়ার সাবলিল অভিনয় দেখে মনে হয়েছে এটা তাঁরই জীবনের গঠনা। এবিষয়ে নায়িকা জয়ার সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি। যানা যায় তিনি বর্তমানে দেশের বাইরে অবস্থান করছেন। এবিষয়ে ফিরোজ প্লাবনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘আমাদের পরিচিত একজন শিল্পীর জীবনের ঘটনা থেকেই আমি গানের কথা লিখেছি। কার জীবিনের গল্প সেটা বলতে চাইনা। আর জয়ার অভিনয় যদি বলতে চাই তা হলে বলবো তিনিতো এমনিতেই ভালো অভিনয় করেন। যে কারনে মনে হতে পারে এটা তারই জীবনের গল্প। আমি বাস্তব গল্প গানের কথায় তোলে আসতে চেষ্টা করি। আশা করি সবার কাছে গানটি ভালো লাগবে। জয় চৌধুরী এরই মধ্যে ‘ফুলবানু’ ছবির কাজ প্রায় শেষ করেছেন। বর্তমানে বাঘিনী’ শিরোনামে আরেকটি ছবি নিয়ে বেস্থ্য সময় পার করছেন।

==========

আরও পড়ুন

=========

সারাজীবন গানের সাথেই থাকতে চাই- কন্ঠশিল্পী মেরী

সিটিবাংলানিউজ.কম, সম্পাদনায়-আরজে সাইমুর: রিয়েলিটি শো চ্যানেল আই সেরা কণ্ঠ ২০১৪ সালের প্রতিযোগিতায় চতুর্থ হয়েছিলেন কন্ঠশিল্পী মনিষা ভাদুরী মেরী । মেরী বাংলাদেশের সঙ্গীত জগতের একজন উদীয়মান নক্ষত্র। গান নিয়ে ব্যস্ত সময় যাচ্ছে এই শিল্পীর। এই শিল্পী দেশের প্রশাসনিক শো ও অন্যান্য স্টেজ মাতিয়ে এবার তিনি দেশের বাইরে প্রোগ্রাম করে প্রবাসীদের মন জয় করছেন। কাতার, সিংগাপুর, ভারত, মালয়শিয়া ও নেপালেও গান গেয়ে দেশের জন্য সম্মান অর্জন করছে এই প্রতিশ্রুতিশীল শিল্পী। মেরী ছোট বেলা থেকেই গান করছেন। আর সঙ্গীতের প্রতি ভালবাসা, আগ্রহ ও অনুুপ্রেরনা পায় তার মা-বাবার থেকে তার ভাইও ছোট বেলা গান করতো সেখান থেকেই শুনে শুনে গান গাওয়া। গানকে মেরী অনেক ভালবাসে আর গান তার জীবনের একটি অংশ। আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল, সঞ্জীব দে, অলোক সেন এর কাছে গান শিখেছেন আর এখন শিখছেন । ২০১৪ সালের চ্যানেল আই সেরা কন্ঠ শিল্পী মনিষা ভাদুরী মেরী প্রায় ২৫টির মত গান গেয়েছেন। অনেকগুলো গানের মিউজিক ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে। জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পী বেলাল খান, কাজী শুভ, শাহরিয়ার রাফাত, প্রত্যয় খান, নিরো, জীবন খান ও ভারতের আকাশ সেনের সাথে গান গেয়েছেন তিনি। ‍খুুব শীঘ্রিই আকাশ সেনের সাথে গানের মিউজিক ভিডিও প্রকাশ পেতে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে মেরী বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে প্লেব্যাকও করেছেন আরও কিছু  নতুন চলচ্চিত্রের কাজ এর কথা চলছে। মেরীর স্বপ্ন বিশ্ব বিখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়ে বাংলাদেশকে বিশ্বের দরবারে উপস্থাপন করবেন। কিংবদন্তি শিল্পী শ্রদ্ধেয় সাবিনা ইয়াসমিন, রুনা লায়লা, আব্দুল হাদী, এন্ড্রো কিশোর, সুবীর নন্দী এর খুব পছন্দ ও তাদের অনুসরন করেন মেরী। খু্ব শীঘ্রই কন্ঠশিল্পী মেরীর একক এ্যালবাম প্রকাশিত হবে।এ্যালবামের কাজ প্রায় শেষের পথে। মেরীর অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে Merry ও ইউটিউব চ্যানেল Monisha Bhadury Merry এ তার নতুন গান সম্পর্কে তথ্য পাওয়া যাবে।

==========

আরও পড়ুন

=========

 

আগামী ১৭ নভেম্বর ‘গার্লস ড্রিম জোন-পাওয়ারফুল উইমেন’ এর ২য় গ্রান্ড জিটুজি

সিটিবাংলানিউজ.কম: আগামী ১৭ নভেম্বর ২০১৮ রোজ শনিবার নারী উদ্যোক্তাদের ফেসবুক পেজ বিডি ফ্যাশন বিউটির আয়োজনে ‘গার্লস ড্রিম জোন-পাওয়ারফুল উইমেন’ এর ২য় গ্রান্ড গেটটুগেদার অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ‘গার্লস ড্রিম জোন-পাওয়ারফুল উইমেন’ এর প্রতিষ্ঠাতা কাকন ও ইসরাত স্বদেশ নিউজকে জানান- ‘গার্লস ড্রিম জোন-পাওয়ারফুল উইমেন’ এর ২য় গ্রান্ড গেটটুগেদার এ সেলেব্রেটি গেস্ট- জনপ্রিয় অভিনেত্রী তিশা, রেসি, জলি, নাজমি জান্নাত ও ড্যান্স কোরিওগ্রাফার ইভান শাহরিয়ার সোহাগ। অনুষ্ঠানে মিডিয়া পার্টনার থাকছে আরজে সাইমুর পরিচালিত স্বদেশ নিউজ২৪.কম, রেডিও স্বদেশ ও স্বদেশ.টিভি। অনুষ্ঠান চলবে দুপুর ১২টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত। ২য় গ্রান্ড গেটটুগেদার থাকছে- সবার জন্য থাকে ওয়েলকাম গিফট, কেক কাটিং, ড্যান্স, র‌্যাম্প শো, লাঞ্চ, ফটোসেশন, স্বদেশ টিভি ধেকে বিশেষ সাক্ষাতকার থাকছে এবং সবশেষে থাকছে মন মাতানো ডিজে শো।

‘গার্লস ড্রিম জোন-পাওয়ারফুল উইমেন’ এর প্রতিষ্ঠাতা কাকন ও ইসরাত স্বদেশ নিউজকে আরো জানান- ‘গার্লস ড্রিম জোন-পাওয়ারফুল উইমেন’ এর গ্র্যান্ড গেট টুগেদারে নারী উদ্যোক্তাদের মাঝে সম্মাননা প্রদান করা হবে। এবং তাদের গ্রুপের এর বিগ বাজেটের মানি স্পন্সর করছেন গ্রীন পার্ল লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মেহেদি হাসান খান। আমাদের এই মিলন মেলায় অনেক নারী উদ্যোক্তারা সহযোগিতা করেছেন।  আমাদের গ্রুপের মেম্বার, স্পন্সরদের সহযোগীতা ছাড়া এই মিলন মেলা আয়োজন করা সম্ভব হতো না। আমরা আশা করছি ১৭ নভেম্বর নারীদের এই মহা মিলন মেলা স্মরনীয় ও সফল হবে। এতে আগামীতে আরো নতুন নারী উদ্যোক্তারা অনুপ্রানিত হবেন ।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*